• শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ০৭:২৫ পূর্বাহ্ন
  • Bengali Bengali English English

ত্রিশালে প্রাণী সম্পদ দপ্তরের উদ্যোগে গবাদিপশুর কৃমি মুক্তকরণ কার্যক্রম

sodeshbarta24 / ৮৮ বার পঠিত
আপডেট : বুধবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০২০

এনামুল হক, ময়মনসিংহঃ ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার গবাদিপশুর কৃমিনাশক কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা প্রাণিসম্পদ ও ডেইরি উন্নয়ন প্রকল্পে সহযোগিতায় রামপুর ইউনিয়নের রামপুর উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে বুধবার সকাল ১২টায় এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।
কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আব্দুল মতিন সরকার, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রাণী সম্পদ ও ডেইরী উন্নয়ন প্রকল্পের উপ-প্রকল্প পরিচালক ডাঃ এস এম নুরুল আমিন,রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমুল সরকার। উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মোঃ হারুনুর রশিদের সভাপতিত্বে ও ডাক্তার শর্মিষ্ঠা ভট্টাচার্য লাইভস্টক এক্সটেনশন অফিসার এলডিডিপি এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে কৃমিনাশক ওষুধের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে বিশদ আলোচনা করা হয়।
আলোচনায় গবাদিপ্রাণীর উৎপাদনে কৃমির ক্ষতিকর দিকগুলো তুলে ধরেন বক্তারা। সুস্থ গবাদিপশু পালনের লক্ষ্যে এবং এর উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য প্রতি তিন মাস অন্তর অন্তর গবাদিপশুকে কৃমিনাশক ওষুধ দেওয়ার জন্য খামারিদের কে পরামর্শ দেওয়া হয়। উপ-প্রকল্প পরিচালক ডাঃ এস এম নুরুল আমিন এ এসময় চলমান মহামারী করোনা সংক্রমনের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় ঘরে থাকা ক্ষতিগ্রস্ত খামারিদের প্রণোদনা পাওয়ার বিষয়ে আশ্বস্ত করেন। তিনি দুধ ডিম ও মাংস উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে খামারিদের মাঝে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন।
প্রধান অতিথি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মতিন সরকার তার বক্তব্যে খামারিদের উপজেলা প্রাণীসম্পদ অফিসের কর্মকর্তা কর্মচারীদের সহযোগিতায় তাদের খামার পরিচালনা করার জন্য উৎসাহিত করেন এবং দুধ ডিম,মাংসের পুষ্টিগুণ সম্পর্কে বিশদ আলোচনা করেন। অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমুল সরকার বলেন- মেধাবী জাতি গঠনে প্রাণীসম্পদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, সেই সাথে সুস্থ গবাদি পশু পালনের লক্ষ্যে কৃমিনাশক এর গুরুত্ব বৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তাও তুলে ধরেন তিনি।


এ জাতীয় আরো খবর..

করোনাভাইরাস