• মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ০৮:৫০ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে ইউএনও-ওসি সহ ১২ কর্মকর্তা হোম কোয়ারাইন্টাইনে

sodeshbarta24 / ১৯৬ বার পঠিত
আপডেট : শনিবার, ২ মে, ২০২০

রামগতি সংবাদদাতা :

লক্ষ্মীপুরের রামগতির একটি ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যানের করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে। করোনা শনাক্ত হওয়ার আগে আট দিনে ধরে ত্রাণ বিতরণ করেছেন তিনি।

এই সময় তার সংস্পর্শে আসেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ শত শত সাধারণ মানুষ। চেয়ারম্যানের করোনা শনাক্ত হওয়ার পর থেকে ইউএনও হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন।

শুক্রবার সকালে আক্রান্ত ওই প্যানেল চেয়ারম্যানের সংস্পর্শে আসা ২৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। এছাড়া রামগতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও), সহকারী কমিশনার (ভূমি), থানার ওসি ও হাসপাতালের আরএমওসহ আরও ১০ থেকে ১২ জনের নমুনা পাঠানো হবে।

রামগতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, গত ২৯ এপ্রিল রাতে চরগাজী ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিনের করোনা শনাক্ত হয়। এর আগে ২২ এপ্রিল পরীক্ষার জন্য তার নমুনা দেন। কোনো উপসর্গ না থাকায় তিনি এই সময় ত্রাণ বিতরণ ও জনসমাগমে অংশ নেয়া অব্যাহত রেখেছিলেন।

জানা গেছে, করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার আগে তিনি ইউনিয়নের সাড়ে ৩ হাজার জেলে ও ৫০০ অসহায় দরিদ্র মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন। এই সময় তার সংস্পর্শে আসেন ইউনিয়নের মেম্বার, গ্রাম পুলিশসহ কয়েক শত সাধারণ মানুষ। এমনকি ২৯ এপ্রিল দুপুরে ওই চেয়ারম্যান সঙ্গে রামগতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল মোমিন ত্রাণ বিতরণ করেছেন।

রামগতি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবদুল মোমিন বলেন, আমি জানতাম না প্যানেল চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছেন। তার করোনা পজিটিভ আসার পর থেকে আমি হোম কোয়ারেন্টিনে আছি। ওই ইউনিয়নের সব মেম্বার, গ্রাম পুলিশ ও সচিবের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

রামগতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লক্সের আরএমও ডা. কামনাশিস মজুমদার বলেন, ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা ব্যক্তিদের নমুনা নেয়ার সময় প্যানেল চেয়ারম্যানের নমুনাও সংগ্রহ করা হয়।


এ জাতীয় আরো খবর..

করোনাভাইরাস