• বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০১:৩০ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English

লক্ষ্মীপুর ডাকাত দলের হাতে যুবলীগ নেতা খুন

sodeshbarta24 / ৪২ বার পঠিত
আপডেট : শুক্রবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২০
স্ব‌দেশবার্তা২৪

রবিন হোসেন তাসকিনঃ লক্ষ্মীপুর আন্দার মানিক এলাকায় দূর্ধষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

এসময় ডাকাতের হামলায় ওয়ার্ড যুবলীগের আহবায়ক মনির হোসেন নিহত ও তার স্ত্রী মিলন বেগম গুরুতর আহত হয়। তার অবস্থায় আশংকাজনক হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
শুক্রবার মধ্য-রাতে সদর উপজেলার তেওয়ারীগঞ্জ ইউনিয়নের আন্ধার মানিক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত মনির হোসেন আলী আহমেদ বসুর ছেলে।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানায়,গভীর রাতে ১০/১৫ জনের একদল ডাকাত, মনির হোসেনের ঘরে মই দ্বারা ছাঁদের ওপর দিয়ে ভিতরে প্রবেশ করে ঘরের সবাইকে জিম্মি করে বেঁধে রাখে। এক পর্যায় মনির হোসেন ডাকাতদের বাধা দিলে তাকে ও স্ত্রীকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। স্বণাংলকার, মটর সাইকেল ও নগদ ২লাখ টাকাসহ মালামাল লুট করে নিয়ে যায় ডাকাতদল।

পরে তাদের শোর-চিৎকারে আশ-পাশের লোকজন এগিয়ে এসে আহত অবস্থায় মনির হোসেন ও তার স্ত্রীকে উদ্ধার করে প্রথমে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল ও পরে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পর মনির হোসেন মারা যায়। গুরুতর আহত স্ত্রী মিলন বেগমকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তার অবস্থায় আশংকাজনক বলে জানিয়েছেন সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক।

এ দিকে তেওয়ারীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হুসাইন ইবনে ভুলু জানান, মনির হোসেন ইটভাটার মাটির ব্যবসার সাথে জড়িত। পাশাপাশি ওয়ার্ড যুবলীগের আহবায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে। দুইদিন আগে ইট ভাটার মালিক থেকে দুই লাখ টাকা বাসায় নিয়ে আসে। টাকার জন্য এ ঘটনা ঘটে বলে দাবী করেন তিনি।
স্থানীয়রা জানায় আতংকের জনপদ আন্ধারমানিক গ্রাম চার থানার সীমানাবর্তী এলাকা হওয়ার কারনে এবং শীতের মৌসুম আসলে এই গ্রাম সহ পাশ্ববর্তী গ্রামে ডাকাতির ঘটনা ঘটে, গত ৩ বছর যাবৎ ডাকাতি কালে ৪ জনে মৃত্যুবরন করেন। তাই স্থানীয় জনগনের দাবী এখানে আইনশৃঙ্গলা বজায় রাখতে পুলিশ ক্যাম্প জরুরী

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একেএম আজিজুর রহমান মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহত মনির হোসেনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। জড়িতদের চিহিৃত করে গ্রেপ্তারের অভিযান ও মামলার প্রস্তুতি চলছে

এদিকে লক্ষ্মীপুর পুলিশ সুপার ড.এ এইচ এম কামরুজ্জামান ঘটনা স্থল পরিদর্শন করে বলেন,ডাকাত দলের আঘাতে মনির হোসেন নিহত হয়েছে,এবং তার স্ত্রী মিলন বেগম আশংকা জনক অবস্থায় আছে। সার্বিক বিষয়টি তদন্ত করে খুব শিঘ্রই যারা এই ঘটনার সাথে জড়িত তাদের আইনের আওতায় আনতে পারবো, তিনি আরে বলেন চারটি থানার সীমানা কারনে এই স্থানে অতিসত্তর একটি পুলিশ ক্যাম্প ঘটন করা হবে।


এ জাতীয় আরো খবর..

করোনাভাইরাস