• শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ০৬:১৮ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English

লক্ষ্মীপুরে দুর্বৃত্তদের আগুনে এতিমখানা পুড়ে ছাই

sodeshbarta24 / ৬৭ বার পঠিত
আপডেট : শুক্রবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২০
স্ব‌দেশবার্তা২৪

স্বিব‌দেশকার্তা২৪ এম সগরঃস্ব‌দে লক্ষ্মীপুরে রাতের অন্ধকারে দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে একটি এতিমখানার খাবারঘরসহ আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। শুক্রবার (১৮ ডিসেম্বর) ভোররাতে সদর উপজেলার মান্দারী ইউনিয়নের যাদৈয়া গ্রামে আলহাজ্ব মাওলানা আহম্মদ উল্লাহ ছাহেব মাদ্রসা কমপ্লেক্স ও এতিমখানা এ দুর্ঘটনা ঘটে। তবে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে অগ্নিকান্ডের ঘটনাটি ঘটতে পারে বলে জানিয়েছে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ।

মাদ্রাসা ও স্থানীয় জানায়, ভোররাত ৩ টা ৪৫ মিনিটে প্রতিদিনের মতো মাদ্রাসা শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ফজরের নামাজের জন্য ঘুম থেকে উঠে। এসময় খাবারঘরে দাও দাও করে আগুন জ্বলতে দেখা যায়। এরআগে মাদ্রাসার বাইরে অজ্ঞাত মানুষের কথাবার্তাও শোনা যায়। পরে শিক্ষার্থীদের সহযোগীতায় শিক্ষকরা আগুন নেভাতে চেষ্টা করে। এসে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এরআগেই চাল-তরকারি, ফ্রিজ ও আসবাবপত্রসহ খাবারঘরটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। মাদ্রাসার নিরাপত্তা দেওয়ালের ওপর দিয়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় বলে দাবি করেছে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, প্রতিষ্ঠানের পাশ্ববর্তি সাইফ উদ্দিন, আবদুল মালেকদের সঙ্গে রাস্তা র্নির্মাণ নিয়ে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের দীর্ঘদিনের বিরোধ রয়েছে। সাইফ উদ্দিনরা মাদ্রাসার জমির ওপর দিয়ে রাস্তা নির্মাণ করার চেষ্টা করে। এতে বাধা দিলে মাদ্রাসা পরিচালক মনিরের ওপর একাধিকবার হামলা চালানো হয়। মাদ্রাসার দুটি গাছ রাস্তা নির্মাণের জন্য সাইফ উদ্দিনরা জোরপূর্বক কেটে ফেলে। এসব ঘটনায় মাদ্রাসার পরিচালক মনির বাদি হয়ে আদালতে দুটি মামলা চলমান রয়েছে। এরমধ্যে একটি মামলা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেসটিগেশন (পিবিআই) নোয়াখালীকে তদন্ত দিয়েছে আদালত।

লক্ষ্মীপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মো. ওয়াসি আজাদ বলেন, প্রাথমিকক ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনে সূত্রপাত হতে পারে। আগুনে দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হতে পারে। তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।


এ জাতীয় আরো খবর..

করোনাভাইরাস